ঢাকা, বুধবার, ১৪ এপ্রিল ২০২১, , ২ রমজান ১৪৪২
Reg:C-125478/2015

পাঁচবিবিতে তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেন এর যাত্রা বিরতির উদ্বোধন


প্রকাশ: ৫ এপ্রিল, ২০২১ ০৪:৩৫ পূর্বাহ্ন


পাঁচবিবিতে তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেন এর যাত্রা বিরতির উদ্বোধন

 আজ ৪ এপ্রিল রবিবার পাঁচবিবি বাসীর দীর্ঘদিনের দাবির পরিপ্রেক্ষিতে রাজশাহী হতে ছেড়ে আসা চিলাহাটি গামী তিতুমীর এক্সপ্রেস ট্রেন এর যাত্রা বিরতীর শুভ উদ্বোধন করেন পাঁচবিবির কৃতি সন্তান পাঁচবিবি রেলওয়ে স্টেশনের উন্নয়নের রূপকার বাংলাদেশ রেলওয়ে পশ্চিমাঞ্চলের অডিট কর্মকর্তা গোলাম রব্বানী বাবু । 
 
 পাঁচবিবিতে সকল আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রা বিরতী বাস্তবায়নের জন্য আহব্বায়ক কমিটির ব্যানারে সাবেক ছাত্রনেতা, শিক্ষক ফরহাদ আলম জুয়েলের নেতৃত্বে আন্দোলন ও আবেদন করে আসছিলেন। 
 
এ আন্দোলনে পাঁচবিবি বিভিন্ন শিক্ষানুরাগী ব্যক্তিত্ব রাজনৈতিক মহল, শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, ব্যবসায়ী, শ্রমিক ও সাংবাদিক মহল সমপৃক্ত হয়েছিলেন। এর ধারাবাহিকতায় ইতিমধ্যে ঢাকাগামী একতা, দ্রুতযান, রাজশাহীগামী বরেন্দ্র, বাংলাবান্ধা এক্সপ্রেস যাত্র বিরতী কার্যকর হয়েছে। সর্বশেষ রাজশাহীগামী তিতুমীল এক্সপ্রেস এর যাত্রবিরতি শুরু হলো। তিতুমীরের যাত্রা বিরতীর কার্যকর হওয়ার সংবাদ পেয়ে যাত্রাবিরতী আন্দোলনের আহব্বায়ক ফরহাদ আলম জুয়েলের নেতৃত্বে ষ্টেশন চত্ত্বরে এক সংবর্ধনা আয়োজন  করা হয়। 
 
উক্ত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সভাপত্বি করেন বিশিষ্ট ব্যাবসায়ী শ্যামল কুন্ডু। অনুষ্ঠানে যোগ দেন বাংলাদেশ রেলওয়ের পশ্চিম অঞ্চলের অডিট কর্মকর্তা পাঁচবিবির কৃতি সন্তান গোলাম রাব্বানী বাবু, তিনি আগামী দিনে অন্যান্য আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রাবিরতীর জন্য রেল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনাসহ সার্বিক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন ।শুধু তাই নয় তিনি ইতিমধ্যে পাঁচবিবি রেল ষ্টেশনের ওভার ব্রিজ, দুই নম্বর প্লাটফর্ম নির্মাণ রেলস্টেশনের চতুর্দিকে তারকাটা বেড়া বেষ্টনীসহ বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কাজ করেছেন ফলে পাঁচবিবি বাসীর তাকে অভিনন্দন জানিয়েছেন  ।
 
এ সময়ে বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব আমিনুল হক বাবুল, বালিঘাটা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুজ্জামান চৌধুরী বিপ্লব, বিশিষ্ঠ রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব মুনছুর রহমান মন্ডল, আওয়ামীলীগ নেতা দেওয়ান সিরাজুল ইসলাম, সুভাস চন্দ্র দাস, প্রভাষক শাহ জাহান আলী, ছাত্র নেতা নুহু, ব্যবসায়ী গোলাম নবী প্রমূখ। অনুষ্ঠান শেষে প্রথম দিনের যাত্রী, ট্রেনের ড্রাইভার ও পরিচালকসহ রেল কর্মকর্তাদের কে মিষ্টিমুখ করানোর পাশাপাশি ফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানানো হয়। 
 
উল্লেখ্য ঐতিহ্যবাহি পাঁচবিবি রেল ষ্টেশনে ৫টি আন্তঃনগর ট্রেনের যাত্রবিরতী হলেও টিকিট ক্রয়-বিক্রয়ের ক্ষেত্রে কম্পিউটারাইজ সিস্টেম চালু নেই। ফলে প্রতিনিয়তই কালো বাজারিদের হাতে টিকিট চলে যাচ্ছে।যাত্রীদেরকে কালোবাজারি নিকট থেকে বেশি দামে টিকিট ক্রয় করতে হচ্ছে। কেউ কেউ বেশি টাকা খরচ করে অন্য ষ্টেশন থেকে টিকিট সংগ্রহ করছে। 
 
এ বিষয়ে ষ্টেশন মাস্টার আব্দুল আওয়াল জানান। কর্তৃপক্ষ কম্পিউটারম্যান পোষ্টিং দিলেই অনলাইন সিস্টেম কার্যকর হবে।


   আরও সংবাদ