ঢাকা, মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০২১, , ১৩ সফর ১৪৪৩
Reg:C-125478/2015

চুল রং করার ব্যাপারে ইসলাম যা বলে


প্রকাশ: ২৪ অগাস্ট, ২০২১ ১৫:৪৫ অপরাহ্ন | দেখা হয়েছে ৫৬৫ বার


চুল রং করার ব্যাপারে ইসলাম যা বলে

ফরহাদ খান নাঈম।। বৃদ্ধ বয়সে চুল রং করা একটি স্বাভাবিক প্রবণতা। মৌলিকভাবে চুলে রং করাতে কোনো সমস্যা নেই; এবং শরীয়তে এর অনুমতি রয়েছে। তাই বৃদ্ধ বয়সে যারা চুল রাঙিয়ে নিতে চান, তারা তিনটি শর্তসাপেক্ষে নিঃসন্দেহে তা করতে পারেন। 

প্রথমত: চুল রং করার ক্ষেত্রে কালো রং তথা কলপ ব্যবহার করা যাবে না; কারণ এর দ্বারা পাকাচুল পুরোপুরি আবৃত হয়ে যায়। 

দ্বিতীয়ত: চুলে রং করতে গিয়ে কোনো কাফির-মুশরিকের স্টাইল ধারণ করা যাবে না। 
তৃতীয়ত: যে রং  চুলে লাগানো হচ্ছে, তার মধ্যে যদি কোনো ক্ষতিকর রাসায়নিক না থাকে।

তদ্রূপ নারীদের জন্যও কালো রং ছাড়া অন্য যে কোনো রং দ্বারা পাকা চুল রাঙিয়ে নেওয়া জায়েজ আছে। পাকা চুল রং করার ক্ষেত্রে কালো রং পরিহার করার ব্যাপারে একাধিক হাদিস বর্ণিত আছে।

হজরত জাবের ইবনে আব্দুল্লাহ (রা.) থেকে বর্ণিত, মক্কা বিজয়ের দিনে আবু কুহাফাকে আনা হলো। তখন তার চুল-দাড়ি ছিল ‘ষাগামা’ ফুলের মতো সাদা।  তখন রাসুল (সা.) বললেন, ‘এটিকে কোনো কিছু দ্বারা পরিবর্তন করো। তবে কালো থেকে বিরত থাকো।’ (মুসলিম: ৫৪৬৬)

আরেক হাদিসে বর্ণিত হয়েছে, রাসুল (সা.) বলেন, শেষ যুগে এমন এক শ্রেণির লোক হবে, যারা পায়রার ছাতির মতো কালো কলপ ব্যবহার করবে, তারা জান্নাতের সুগন্ধও পাবে না। (আবু দাউদ: ৪২১২)

আর পাকা চুল রং করার ক্ষেত্রে এমন রংও পরিহার করতে হবে, যে রং দিয়ে চুল রাঙালে কাফির-মুশরিক আর মুসলমানের মধ্যে পার্থক্য করা যায় না। এ ধরনের রং দ্বারা চুল রাঙানো নারী-পুরুষ উভয়ের জন্যই হারাম। 

কেননা হাদিসে এসেছে- হজরত আবু উমামা (রা.) হতে বর্ণিত, রাসুল (সা.) কিছু আনসার সাহাবাদের উদ্দেশে বলেন, সাদা দাঁড়ি চুলগুলো লাল অথবা হলুদ রঙ দ্বারা পরিবর্তন করো এবং আহলে কিতাবদের (ইহুদিদের) বিরোধিতা করো। (আহমাদ- ২২৩৩৭)

তাছাড়া নবীজি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম বলেছেন, যে ব্যক্তি কোনো সম্প্রদায়ের অনুসরণ করে, (কেয়ামতের দিন) সে তাদের অন্তর্ভুক্ত বলে গণ্য হবে।

বর্তমানে বাজারে চুল রং করার জন্য যে সমস্ত রং কিনতে পাওয়া যায়, তাতে সাধারণত বিভিন্ন রাসায়নিক ব্যবহার করা হয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে নির্দিষ্ট কোনো কোম্পানি বা ব্র্যান্ডের রং ব্যবহার করার আগে অবশ্যই একজন ডাক্তারের সঙ্গে পরামর্শ করে জেনে নিতে হবে যে, উক্ত রং দ্বারা চুল রং করলে চুল কিংবা মাথার কোনো ক্ষতি হবে কিনা।

যদি কোনো রঙে ক্ষতিকর রাসায়নিক পদার্থ পাওয়া যায়, তা দ্বারা পাকা চুল রং করা যাবে না। আর যদি তাতে কোনো ক্ষতিকর পদার্থ পাওয়া না যায়, সেক্ষেত্রে উক্ত রং দ্বারা চুল রাঙাতে কোনো অসুবিধা নেই। সূত্র: যুগান্তর


   আরও সংবাদ