ঢাকা, শনিবার, ২৩ অক্টোবর ২০২১, , ১৬ রবিউল আউয়াল ১৪৪৩
Reg:C-125478/2015

ধুনটে ৪ পুকুরে বিষ প্রয়োগে ৩ লক্ষ টাকার মাছ নিধন


প্রকাশ: ৬ অক্টোবর, ২০২১ ১৫:০৮ অপরাহ্ন | দেখা হয়েছে ১৮০ বার


ধুনটে ৪ পুকুরে বিষ প্রয়োগে ৩ লক্ষ টাকার মাছ নিধন

পূর্ব শত্রুতার জের ধরে বগুড়ার ধুনট উপজেলায় ৪টি পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে প্রায় ৩ লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন করেছে দূর্বৃত্তরা। সোমবার দিবাগত রাতে ধুনট উপজেলার এলাঙ্গী ইউনিয়নের শৈলমারী গ্রামে এঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, শৈলমারী গ্রামের বজলুর রহমানের কাছ থেকে ৫০ শতক, ১৬ শতক ও ৮ শতক আয়তনের ২টি পুকুর সহ মোট ৪টি পুকুর বার্ষিক ১ লাখ ২৫ টাকায় লীজ নিয়ে মাছ চাষ করে আসছেন একই গ্রামের আকবর হোসেনের ছেলে আনোয়ার হোসেন, আব্দুল মালেকের ছেলে মনজু, মনছের আলীর ছেলে আব্দুর রউফ ও এসহাক মন্ডলের ছেলে রেজাউল হোসেন।

কিন্তু সোমবার দিবাগত রাতে পূর্ব শত্রুতার জের ধরে কে বা কারা ওই ৪টি পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে এবং একটি নৌকা ভাংচুর করে। দূর্বৃত্তদের বিষ প্রয়োগের কারনে মঙ্গলবার ওই সকল পুকুরের সব মাছই মরে ভেসে ওঠে। এতে ওই মৎস্যচাষীদের প্রায় ৩ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে।

এব্যাপারে মৎস্যচাষী আনোয়ার হোসেন ও মনজু জানান, আমাদের পুকুরের পাশেই একই গ্রামের হযরত আলীর ২০ শতক, আবু বক্কারের ১৬ শতক ও শাহআলমের ১৬ শতক পুকুর থাকলেও তাদের একটি মাছও মারা যায়নি।

ভুক্তভোগিদের অভিযোগ , এক সপ্তাহ আগে ওই পুকুর মালিক হযরত আলীর ছেলে রাজন ও তার বন্ধুদেরকে আমাদের পুকুরে জাল ফেলতে নিষেধ করায় তারাই এঘটনাটি ঘটিয়েছে। তাই নিরুপায় হয়ে তারা থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি নিচ্ছেন বলেও জানান ক্ষতিগ্রস্থ এই মৎস্যচাষীরা।

এব্যাপারে ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা জানান, পুকুরে বিষ প্রয়োগ করে মাছ নিধনের বিষয়ে থানায় কেউ অভিযোগ করেনি। লিখিত অভিযোগ পেলে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।


   আরও সংবাদ