ঢাকা, মঙ্গলবার, ০৫ জুলাই ২০২২, , ৫ জ্বিলহজ্ব ১৪৪৩
Reg:C-125478/2015

সিদ্ধান্ত বদল : টাকা সমন্বয় করে হজে যেতে পারবেন পরিবর্তিত ব্যক্তিরা

ডেস্ক রিপোর্ট


প্রকাশ: ১৮ মে, ২০২২ ১৯:৩৯ অপরাহ্ন | দেখা হয়েছে ১৫৬ বার


সিদ্ধান্ত বদল : টাকা সমন্বয় করে হজে যেতে পারবেন পরিবর্তিত ব্যক্তিরা

সিদ্ধান্ত বদল করেছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। অর্থাৎ নতুন সিদ্ধান্ত অনুযায়ী যারা ইতোপূর্বে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যাওয়ার জন্য টাকা জমা দিয়েছেন কিন্তু মৃত্যু কিংবা অসুস্থতা অথবা সৌদি সরকারের বয়সের নিধি-নিষেধের কারণে এ বছর হজে যেতে পারছেন না তাদের পরিবারের অন্যকেউ জমাকৃত টাকা সমন্বয় করেই চলতি বছরে হজে যেতে পারবেন।


 
যদিও আজ বুধবার দুপুরে সম্পূর্ণ বিপরীত একটি সিদ্ধান্ত জানিয়ে চিঠি ইস্যু করা হয়েছিল। পরে সেই চিঠি বাতিল করা হয়েছে।

সূত্রমতে, আজ বুধবার দুপুরে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের হজ-১ শাখা থেকে উপসচিব আবুল কাশেস মুহাম্মদ শাহীন স্বাক্ষরিত একটি চিঠিতে জানানো হয়, সরকারি ব্যবস্থাপনায় ২০২২ সালে হজে যেতে ইচ্ছুক ও নিবন্ধনকৃত ব্যক্তিদের মধ্যে যে বা যারা ইতোমধ্যে মারা গেছেন কিংবা অসুস্থ অথবা যাদের বয়স (সৌদি সরকারের নির্দেশনা মতো) ৬৫ বছরের বেশি সেই সকল ব্যক্তির পরিবারের অন্য কেউ ইতোপূর্বে সরকারি ফান্ডে জমাকৃত টাকা রিপ্লেস বা সমন্বয় করে এ বছর হজে যেতে পারবেন না।


 
চিঠিতে বলা হয়, পরিবর্তিত ব্যক্তিদের নতুন করে প্যাকেজের পুরো টাকা জমা দিয়েই হজে যেতে হবে। অর্থাৎ পরিবারের একজনের টাকা জমা থাকার পরেও অন্য কেউ ওই টাকা হজের জন্য ব্যবহার করতে পারছেন না। তবে যথানিয়মে অনলাইনে আবেদন করে পরবর্তী সময়ে ওই জমাকৃত টাকা উত্তোলন করতে পারবেন।

এদিকে সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যেতে ইতোমধ্যে যারা প্যাকেজের সমুদয় টাকা জমা দিয়েছেন কিন্তু মৃত্যু, অসুস্থতা কিংবা বয়সের বিধি-নিষেধের কারণে এ বছর হজে যেতে পারছেন না এমন ব্যক্তিদের সংখ্যাও নেহায়েত কম নয়। প্রাথমিক হিসাবে এই সংখ্যা দাঁড়াবে ৫ শ’ থেকে ৬ শ’ জনের মতো। আর এ বছর সরকারি ব্যবস্থাপনায় হজে যাচ্ছেন মোট ৪ হাজার জন। আর সরকারি ও বেসরকারি মিলে বাংলাদেশ থেকে চলতি বছরে হজে যাবেন ৫৭ হাজার ৫৮৫ জন।

অন্যদিকে আজ বুধবার সন্ধ্যায় ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (হজ) মতিউল ইসলাম নয়া দিগন্তের এই প্রতিবেদককে জানান, আমাদের আগের সিদ্ধান্ত ছিল সরকারি ব্যবস্থাপনায় জমাকৃত টাকা সমন্বয় করা যাবে না। পরিবর্তিত ব্যক্তিকে নতুন করে নিবন্ধন এবং প্যাকেজের সমুদয় টাকাই নতুন করে জমা দিতে হবে। যদিও এই পদ্ধতিতে অনেকেরই দুর্ভোগ হবে। তাই আমরা সিদ্ধান্ত পরিবর্তন করেছি। এখন থেকে পরিবর্তিত ব্যক্তি জমাকৃত টাকা সমন্বয় করেই হজে যেতে পারবেন।


   আরও সংবাদ